সাবর্ণ রায় চৌধুরী পরিবারের পুঁই চিংড়ী

0
308

নিজস্ব প্রতিবেদন (দেবস্মিতা ঘোষ)২৫.১০.২০২০

বনেদিয়ানা নজর বরাবরই রেখেছে দক্ষিণ কলকাতার সাবর্ণ রায় চৌধুরী পরিবার।১৬১০ সালে ব্রিটিশরা আসার আগে সুতানুটি গোবিন্দপুর এবং কলকাতাতে জমিদারি করতেন সাবর্ণ রায়চৌধুরী পরিবার ।চৌধুরী এবং তার স্ত্রী ভগবতী দেবী ও লক্ষীকান্ত রায় চৌধুরি এঁরা প্রত্যেকে মিলে বরিশার এই দুর্গাপূজা শুরু করেন। তাদের পরিবারের এক ইতিহাস রয়েছে ।সাবর্ণ রায়চৌধুরী প্রথম মা দুর্গা তার চার সন্তান সহ  প্রতিমা করে পুজো শুরু করেন।

 সাবর্ণ রায়চৌধুরী পরিবারের প্রথম কার্তিকের পুজো দেয়া শুরু করেন দুর্গাপুজোর সাথে। কার্তিক পুজো আগে মা দুর্গার সাথে হতো না এবং তা শুধুমাত্র সীমিত ছিল আদিবাসীদের মধ্যে ।সাবর্ণ রায়চৌধুরীদের পুজো দেয়ার পরে কার্তিক রাজকুমার রূপে পূজিত হতে লাগল সারা কলকাতায় ।আগে পশু বলি হলেও তা বহুদিন আগে বন্ধ হয়ে গেছে এই রায়চৌধুরী পরিবারে।তবে এদের ভোগে নিরামিষ আমিষ পাওয়া যায়। চিংড়ি মাছ  সন্ধিপুজো তে হওয়া বাধ্যতামূলক এবং দশমীর সকালে পান্তা ভাত আর কচু শাক দিয়ে ইলিশ মাছের মাথা ও চালতার চাটনি এদের বিশেষ বৈশিষ্ট্য। আজ আমরা শিখব সাবর্ণ রায়চৌধুরী চিংড়ির রেসিপি

উপকরণ :-

বাগদা চিংড়ি

 পুঁইশাক

আলু ডুমো করে কাটা কুমড়ো ডুমো করে কাটা পাঁচফোড়ন

 শুকনো লঙ্কা

হলুদ গুঁড়ো

 লঙ্কাগুঁড়ো

সর্ষের তেল

চিনি ও নুন

প্রণালী

প্রথমেই পুঁইপাতা গুলোকে সরিয়ে নিন পুঁই ডাটা থেকে। এরপর পুঁইশাক ভালো করে ধুয়ে কুচি কুচি করে কেটে রাখুন ।ডাঁটা যদি নরম হয় তবে তা এক থেকে দেড় ইঞ্চি লম্বা মতন করে কেটে ভালো করে ধুয়ে নিন ।তবে ডাঁটা যদি শক্ত হয় তা ব্যবহার না করাই ভালো।মাছটা অল্প হলুদ দিয়ে ম্যারিনেট করে রাখুন ।কড়াইয়ে তেল দিয়ে ১ চা-চামচ মতন ,চিংড়ি মাছ ভেজে তুলে রাখুন ।এরপর একটা কড়াইয়ে তেল দিয়ে তারমধ্যে শুকনো লঙ্কা এবং পাঁচফোরন দিন ।তারপর সব সবজি গুলো দিয়ে মাঝারি আঁচে ৫ থেকে ৭ মিনিট নাড়াচাড়া করুন ।এরপর এর মধ্যে লঙ্কাগুঁড়ো ,সামান্য হলুদ গুঁড়ো দিয়ে আরেকটুখানি নাড়াচাড়া করুন ৫ থেকে ৬ মিনিট। এরপর এর মধ্যে কুচি করে কাটা পাতা দিন।যদি নরম ডাঁটা থাকে তা দিয়ে দিন। জল না দেওয়াই ভালো ।যখন পুঁইশাকে এবং সবজিগুলো থেকে জল বের হতে শুরু করবে তখন তার মধ্যে চিংড়ি মাছ গুলো দিয়ে দিন এবং সবজি সেদ্ধ করা অবধি হালকা আঁচে বসিয়ে রাখুন। নামানোর আগে অল্প চিনি দিয়ে গরম গরম পরিবেশন  করুন পুঁই চিংড়ি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here