ই-সিগারেটে এখন মেয়েদের রাজ…

0
60

নিজস্ব সংবাদদাতা(অর্পিতা ব্যানার্জী),১৪/২/২০২০

বর্তমানের নতুন ট্রেন্ড ই-সিগারেট।ধূমপান ছাড়তে বেশিরভাগ যুবক যুবতীর হাতে এখন ভেপার।সম্ভবত চায়নার রোয়ান নামক একটি কোম্পানি ২০১০ সালে বাজারে নিয়ে আসে এই ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস।তারপর থেকে ভারতেও ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়তে থাকে ভেপারের দাপট। তামাক বর্জন করার এক নতুন উপায় বেছে নিয়েছে একঝাক নতুন প্রজন্ম। সমীক্ষায় দেখা গেছে ২৩ থেকে ৩৫ বছর বয়সের ছেলেমেয়েরা ব্যবহার করছে বেশি এই ই-সিগারেট।লিথিয়াম অয়েল বা লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি দিয়ে তৈরি এই ভেপার।এই ডিভাইসকে সময় মতন চার্জও দেওয়া যায়। রয়ছে নিকোটিন,প্রপিলাইন গ্লাইকল ও ফ্লেভার যুক্ত ই-অয়েল।অর্থাৎ সম্পূর্ণ নিকোটিন বর্জিত নয় ই-সিগারেট।এই বাস্পজাতীয় ধোঁয়া, যে আদতে কতটা নিরাপদ তা নিয়ে নানান জটিলতা রয়ছে চিকিৎসা মহলে।ক্যান্সার এর হাত থেকে বাঁচতে অনেকেই বেছে নিছেন ই-সিগারেটকে।তবে  ই-সিগারেট যে একদমই ক্ষতি করে না এমনটাও নয়। চিকিৎসকদের মতে ই-সিগারেট দ্বারাও ক্ষতিগ্রস্ত হয় মানুষের শরীর। প্রপিলাইন গ্লাইকল যখন বাস্পাকারে লাঙসের মধ্যে দিয়ে যায় তখন অনেক ধরণের সংক্রমণ রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

আরও পড়ুন…আপনি কি যখন তখন গ্রিন-টি পান করেন?

তবে সেই ক্ষতির সম্ভাবনা অনেকটাই কম।সম্প্রতি নর্থ ইষ্ট হিলস বিশ্ব বিদ্যালয়ের একটি গবেষণা দ্বারা বলা হয়ছে ই-সিগেরেটে স্বাস্থ্যহানি হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কম।উন্নত হয়ছে প্রযুক্তি, নিত্যদিন পরিবর্তন হছে চারিদিক।তামাক ছাড়তে যুবসমাজ টানছে ভেপারকে।কেউ কেউ আবার তকমা দিচ্ছে একে ফ্যাশন বলে। এইভাবেই হয়তো তামাক মুক্ত সমাজ থেকে ভেপার এবং একসময় সম্পূর্ণ ধোঁয়া মুক্ত সমাজ তৈরি হবে।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here