উজ্জ্বল ত্বক পেতে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন এই ফেসপ্যাক…

0
232

সংবাদটিভি ওয়েবপেজ

সুন্দর জেল্লাদার ত্বক পেতে কে না চায়। কিন্তু বিউটি পার্লারে মোটা টাকা চলে যায় এই উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার জন্য। প্রাকৃতিক উপায় যেকোনো কিছুই বেশি কাজ দেয়, তাই বিউটি পার্লারে কম গিয়ে বাড়িতেই এই প্যাক বানিয়ে ফেলুন। এবং পেয়ে যান উজ্জ্বল ত্বক।একনজরে জেনে নিন কিভাবে তৈরি করবেন এই প্যাক এবং কিভাবে ব্যবহাক্র করবেন এই প্যাক।

১) এক কাপ দুধের সঙ্গে এক চামচ চন্দন বাটা বা পাউডার মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। এর পর এই পেস্ট আলতো করে সারা মুখে, ঘাড়ে মেখে নিয়ে মিনিট পনেরো রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে সামান্য উষ্ণ জলে ধুয়ে ফেলুন। প্রসঙ্গত, এই প্যাক সপ্তাহে অন্তত তিন দিন এক বেলা করে মাখতে পারলে ত্বক হয়ে উঠবে জেল্লাদার, আকর্ষণীয়।

২) এক চামচ নিম পাতা বাটা বা নিমের পাউডারের সঙ্গে সম পরিমাণ চন্দন বাটা বা পাউডার জলের সঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। এ বার ওই পেস্ট ধীরে ধীরে সারা মুখে, ঘাড়ে মেখে নিয়ে মিনিট পনেরো রেখে দিন। তার পর ঠান্ডা জল দিয়ে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর পাশাপাশি ব্রণ-ফুসকুড়ির মতো সমস্যা থেকেও দ্রুত মুক্তি দেবে।

৩) এক চামচ চন্দন বাটা বা পাউডারের সঙ্গে সামান্য অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। এর পর এই পেস্ট আলতো করে সারা মুখে, ঘাড়ে মেখে নিন। এই প্যাক ব্যবহার করলে মুখের কালচে দাগ এবং ট্যান কমাতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন…ভাতের পাতে ডাল খান? জেনে নিন কোন ডালে কী কী পুষ্টিগুণ রয়েছে…

৪)ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রেখে এর জেল্লা বাড়াতে চন্দন ও গোলাপ জলের প্যাক অত্যন্ত কার্যকরী। দু’চামচ চন্দন বাটা বা পাউডারের সঙ্গে এক চামচ গোলাপ জল মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে প্রতিদিন অন্তত একবেলা করে মুখে মাখুন। মিনিট পনেরো রেখে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন ত্বক হয়ে উঠবে জেল্লাদার, আকর্ষণীয়।

৫) অল্প সময়ে ট্যান মুক্ত উজ্জ্বল, আকর্ষণীয় ত্বক পেতে চাইলে ব্যবহার করুন চন্দন এবং হলুদের মিশ্রণে তৈরি ফেস প্যাক। চন্দন আর হলুদের সঙ্গে আধা কাপ দুধ বা টক দই মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। তারপর লাগিয়ে ফেলুন মুখে। এর পর এই পেস্ট আলতো করে সারা মুখে, ঘাড়ে মেখে নিন। এই প্যাক ব্যবহার করলে মুখের কালচে দাগ এবং ট্যান কমাতে সাহায্য করে। ত্বক হয়ে উঠবে জেল্লাদার, আকর্ষণীয়।

যেকোনো কিছুই যত আপনি প্রাকৃতিক ভাবে ব্যবহার করবেন তোতোই শরীর আপনার তাজা রাখবে। এছারাও মন ভালো থাকলে তার প্রভাব মুখের উপরও পড়বে। তাই সদা হাসুন, প্রানচ্ছল থাকুন। এবং অবশ্যই শারীরিক এবং মানসিক যেকোনো সমস্যায় চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। সুস্থ থাকুন। ভালো থাকুন।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here