দাঁত ব্রাশ করার সময় মাড়ি থেকে রক্ত পড়ে?

0
115

সংবাদটিভি ওয়েবপেজ

সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে ব্রাশ করতে গিয়েই দেখেন মাড়ি দিয়ে রক্ত পড়ছে। আবার কোনো কিছু দাঁত দিয়ে কামরে খাওয়ার সময়ও একই ভোগান্তি হয়। মাড়ি থেকে রক্ত পড়াকে অনেকেই অবহেলা করে থাকেন। কিন্তু এই সমস্যা ধীরে ধীরে কিভাবে বড় আকার ধারণ করবে তা বোঝা যায় না। চিকিৎসকদের মতে কখনোই মাড়ি থেকে রক্ত পড়াকে অবহেলা করা উচিত নয়। ঘরোয়া কিছু পধতির মধ্যে দিয়েই বন্ধ করতে পারেন মাড়ি থেকে রক্ত পড়াকে। একনজরে জেনে নিন কি কি করলে মাড়ি থেকে রক্ত পড়া বন্ধ হতে পারবে…

১) মধুর অ্যান্টিসেপ্টিক ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান দাঁতের মাড়ি থেকে রক্ত পড়ার সমস্যা সমাধান করতে সক্ষম। দাঁত ব্রাশ
করার পর আঙুলের ডগায় একটু মধু নিয়ে তা দিয়ে মাড়িতে হালকা মালিশ করতে পারলে উপকার পাওয়া যায়। তবে খেয়াল
রাখবেন, মধু যেন দাঁতে না লাগে। এতে দাঁতে ক্যাভিটি বা ব্যাকটেরিয়া জনিত পচন হওয়ার আশঙ্কা  থাকে।

২) মাড়ির রক্তক্ষরণ বেশি হলে এক টুকরো তুলা বা গজ বরফ ঠাণ্ডা জলে ভিজিয়ে মাড়ির ক্ষত জায়গায় চেপে ধরলে প্রাথমিকভাবে মাড়ি থেকে রক্ত পড়া বন্ধ হবে।

৩) মাড়ি থেকে রক্ত পড়া বন্ধের জন্য উষ্ণ জলের সঙ্গে সামান্য নুন মিশিয়ে এই নুন-জল দিয়ে দিনে অন্তত ৩-৪ বার কুলকুচি
করুন। এই ঘরোয়া পদ্ধতিতে খুব সহজে সাময়িক ভাবে দাঁতের ব্যাথা এবং মাড়ির রক্তক্ষরণের সমস্যায় উপকার মিলতে পারে।

৪) লেবুর রসের সঙ্গে সামান্য নুন মিশিয়ে নিন। এ বার এই মিশ্রণ আঙুলের মাথায় লাগিয়ে তা দিয়ে দাঁত ও মাড়িতে মিনিট
তিনেক মালিশ করুন। এর পর সামান্য উষ্ণ জলে কুলকুচি করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। নিমেষেই দাঁতের ব্যাথা কমে যাবে বা মাড়ির
রক্তক্ষরণ বন্ধ হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন…এই অভ্যাসগুলিই আপনার মেরুদণ্ডের ক্ষতি করে চলেছে…

৫) লবঙ্গের তেলের ওষধিগুণের কথা আমরা অনেকেই জানি। লবঙ্গের তেল মাড়ির ব্যাথা কমানোর পাশাপাশি মাড়ি থেকে রক্ত পড়া বন্ধ করতে সাহায্য করে। সামান্য লবঙ্গের তেল মাড়িতে লাগালে নিমেষেই উপকার পাওয়া যাবে। এ ছাড়াও একটি বা দুটি লবঙ্গ মুখে রাখলেও ভাল ফল পাওয়া যায়। লবঙ্গের তেল মাড়ির রক্তক্ষরণ বন্ধ করার সঙ্গে সঙ্গে মুখের দুর্গন্ধ কাটাতেও সাহায্য করে।

৬) মাড়ির রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে গ্রিন টি অত্যন্ত কার্যকর। গ্রিন টি ভেজানো জল দিয়ে কিছু ক্ষণ কুলকুচি করুন। এটি মাড়িকে
জীবাণুমুক্ত করতে সাহায্য করে। তাছাড়া এর সাহায্যে মাড়ির রক্তক্ষরণও দ্রুত বন্ধ হয়ে যায়।

৭) সামান্য উষ্ণ জলে বেকিং সোডা মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে নিন। এ বার এই পেস্ট দিয়ে দাঁত মাজুন। বেকিং সোডা
মুখের ভেতরের অ্যাসিড নিষ্ক্রিয় করে দাঁতের ক্ষয় রোধ করে। একই সঙ্গে মাড়ির একাধিক সমস্যাও নিয়ন্ত্রণে চলে আসে।

তবে এই সমস্যা দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। সুস্থ থাকুন। ভালো থাকুন।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here