এবার পুজোর ছুটিতে কম খরচে বিদেশ ঘুরে আসতে চান?

0
7

 

সংবাদটিভি ওয়েবপেজ, ১১/০৯/১৯

আজকাল বাঙালিদের অন্যতম প্রিয় ঘোরার জায়গা হয়েছ সমুদ্রসৈকত।তাই জোড়া ইনকামের বাঙালি ইদানীং দেশের গণ্ডি পেরিয়ে অহরহ বিদেশ যাচ্ছে। ট্যুর কোম্পানি কর্তারা বলছেন, এখন ইউরোপের ক্রেজ সবচেয়ে বেশি। চিন, জাপান, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া- লম্বা তালিকা। অনেকেই আগেভাগে টিকিট আর হোটেল বুক করেও শান্তি নেই। ভিসা অ্যাপ্লাই করো। কখনও সরাসরি দূতাবাসে। কখনও ভিএফএসের দপ্তর হয়ে দূতাবাসে। এত কিছুর পর ভিসা ইন্টারভিউ। ভিসা রিজেকশনের ভয়ও আছে। সুতরাং পকেটে অর্থ থাকলেও চিন্তা কমছে না।

সময় বদলেছে। আর এই বদলে যাওয়া সময়ে বাড়তে থাকা পর্যটক সংখ্যা দেখে বাইরের দেশগুলোও নিয়ম পালটাচ্ছে। ভারতীয় নাগরিকদের জন্য কিছু দেশের এয়ারপোর্টের ইমিগ্রেশনের লাইনে দাঁড়ালেই ট্রাভেল ভিসা স্ট্যাম্প আপনার পাসপোর্টে। যাকে বলে ‘ভিসা অন অ্যারাইভাল’। ভিসা সংক্রান্ত সবরকম ঝক্কি ছাড়া ডেস্টিনেশনের একটা ছোট তালিকা রইল আপনার জন্য।

বাঙালির এখন অন্যতম প্রিয় সমুদ্রসৈকত এখন থাইল্যান্ড। সাদা হাতির দেশ। স্কাইস্ক্র্যাপার। চওড়া চকচকে রাস্তা। টুকটুক। বৌদ্ধদের হাসিমুখ। রাজার বাড়ি। সোনার বুদ্ধ। সমস্তটা মিলিয়ে কম খরচে বিদেশের স্বাদ। থাইল্যান্ডের দুটো সবচেয়ে বড় ইউএসপি- থাই ফুড এবং নাইটলাইফ। বছরের যে কোনও সময় থাইল্যান্ড যাওয়া যায়। আর যাঁরা রাতজাগা পাখি, তাঁদের জন্য ব্যাংকক স্বর্গরাজ্য। একবার ব্যাংকক গেলে অবশ্যই বুক করুন চাও-পায়ারা নদীর ওপর ক্রুজে ডিনার। মধ্যবিত্ত জীবনে পরিবার নিয়ে কম খরচে ক্রুজে ডিনারের অভিজ্ঞতা লিখে বোঝানো যাবে না। সেই সঙ্গে দেখুন সিয়াম নিরামিতের কালচারাল শো। ব্যাংকক থেকে পাটায়া ঘণ্টা তিনেকের জার্নি। ব্যাংকক গেলে পাটায়াও ঘুরে আসুন। হাতে সময় থাকলে ফুকেত বা ক্র্যাবি আইল্যান্ডেও যেতে পারেন।

কীভাবে যাবেন

কলকাতা থেকে থাই বিমান পথে যেতে পারেন। সফর সময় হবে চার ঘণ্টা মতো। ফ্লাইটের ভাড়া দিল্লি-মুম্বইয়ের চেয়ে কম।

আরও পড়ুনঃকাঠমান্ডু আপনার ট্যুরের স্থান হলে,আপনার জন্য রইল একটা বড় সুখবর…।

এক্সপার্ট টিপ্‌সঃ

কম বাজেটে ট্রিপ সারতে ভরসা রাখুন লোকাল ট্রান্সপোর্টে। ব্যাংককে বাস-মেট্রো-ট্রেন স্টেশনে কানেকশন ভাল। হোটেল বুক করতে পারেন।

খরচ কেমনঃ
একজনের ৩০ হাজার টাকা।তাই একবার এই জায়গায় ঘুরে আসার প্লান করতেই পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here