দুই ডি.এস.পি-র ভিখারি বন্ধুর সাথে দেখা।তারপর যা হলো জানতে পড়ুন………

0
37

নিজস্ব প্রতিবেদন (দেবস্মিতা ঘোষ) ১৭.১১.২০২০:

আরও দেখুন…

মুসলিমরা বিজেপির মিছিলে আল্লা হু আকবর বলতে পারবে তো?

রুটিন পেট্রলিং করার সময় ডিএসপি রত্নেশ তোমার ও বিজয় ভদরিয়া-কে একজন নাম ধরে ডাকছিলেন ডাস্টবিনের সামনে থেকে। তাঁদের নাম শুনে দুজনেই অবাক! ফিরে তাকালেন। ছেঁড়া পোশাক পরিধান করে ও জট পড়া চুলে দেখলেন এক ভিখারি ডাকছেন। কৌতূহল বশত দুজনেই এগিয়ে গেলেন।

আরও দেখুন

যেতে যেতে ভাবছিলেন যে এই ভিখারি তাঁদের নাম জানলো কি করে? কাছে গিয়েও চিনতে পারছিলেন না তাকে।সারা মুখে তাঁর বহু দিনের না কামানো দাঁড়ি। তখনও তাঁদের নাম ধরে দেকে যাচ্ছিলেন ঐ ভিখারি। তারপর ভালো ভাবে দেখে তাঁরা বিশ্বাস করে উঠতে পারছিলেন না। তাঁদের সামনে ভিখারি বেশে যিনি দাঁড়িয়ে রয়েছেন, তিনি একসময়ের শার্প শুটার। ওই দুই অফিসারের ব্যাচমেট এসআই মণীশ মিশ্রা।

আরও দেখুন 

১৯৯৯ ব্যাচের সাব-ইন্সপেক্টর ছিলেন মণীশ। ২০০৫ সাল পর্যন্ত তিনি চাকরি করেছেন। গোয়ালিয়রের দাতিয়া জেলায় এসআই পদে দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। ২০০৫ সালের পর থেকেই মানসিক ভারসাম্য হারাতে শুরু করেন তিনি। প্রথমদিকে প্রায় ৫ বছর বাড়িতেই ছিলেন তিনি।তারপর আচমকাই একদিন পালিয়ে যান বাড়ি থেকে।সেই খবর পেয়ে অনেক কষ্টে তাঁকে বাড়ির লোক খুঁজে বার করে ও একটি মানসিক হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করেন।কিন্তু সেখান থেকেও পালিয়ে যায় মনীশ।তারপর আর বাড়ির লোক খোঁজ রাখেন নি তাঁর।

আরও দেখুন

ওই দুই অফিসার পুরনো বন্ধুর খোঁজ পেয়ে তাঁকে নিকটবর্তী একটি চিকিৎসা কেন্দ্রে পাঠান। আপাতত সেখানেই মানসিক ভারসাম্যহীন এসআইয়ের চিকিৎসা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here