থাকবে না নন এসি কোচ

0
4735

নিজস্ব সংবাদদাতা: নয়া সিদ্ধান্ত রেলের।একাধিক ট্রেনে রাখা হবে না কোনও নন এসি কোচ।যেসব ট্রেন ঘণ্টায় ১৩০ কিলোমিটার বেগে দৌড়বে। সেই ট্রেনে সাধারণ নন-এসি স্লিপার ক্লাস কোচ থাকবে না। পরিবর্তে তা করা হবে এসি কোচ। এরকমই সিদ্ধান্ত নিল রেলমন্ত্রক।রেল মন্ত্রকে সূত্রে খবর, এইসব ট্রেনের গতি হবে ঘণ্টায় ১৩০-১৬০ কিলোমিটার। যেসব ট্রেন ওই লাইনে চলবে সেইসব ট্রেনে নন-এসি স্লিপার ক্লাস কোচ থাকবে না। সব কোচই হবে এসি।’রেল মন্ত্রকের মুখপাত্র ডি জে নারিন বলেন, যেসব ট্রেন ১৩০ বা ১৬০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় দৌড়বে সেইসব ট্রেনের কোচ সাধারণভাবেই এসি হওয়া প্রয়োজন। আর সেসব ট্রেনের এসি কোচে টিকিটের দাম যাত্রীদের আয়ত্বের মধ্যেই থাকবে বলে জানা গেছে রেল মন্ত্রক সূত্রে। ফলে যাত্রীরা আরামেই যাতায়াত করতে পারবেন। আপাতত দিল্লি-মুম্বই ও দিল্লি-হাওড়া রুটে ওইসব কোচের ব্যবহার করা হবে। জানা গেছে, কাপুরথালার রেল কোচ ফ্যাক্টরিতে ওই ধরনের কোচ তৈরি হচ্ছে। চলতি বছরে এই ধরনের ১০০টি কোচ তৈরি করতে চায় রেল। আগামী বছরের মধ্যে তা বাড়িয়ে ২০০ করার পরিকল্পনা।বেসরকারি ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল আগেই। এবার আরও এক সিদ্ধান্ত নিল ভারতীয় রেল।রেলের পরিকল্পনা অনুযায়ী, নতুন এসি থ্রি-টিয়ার কোচে ৭২-এর পরিবর্তে থাকবে ৮৩টি করে আসন। দ্রুত গতির ট্রেনে স্লিপার ক্লাস না থাকায় নতুন এসি কোচে বেশি ভাড়া গুণতে হবে যাত্রীদের। তবে সেই ভাড়া বর্তমানের এসি কোচের তুলনায় কম হবে।২০২৩ সালের মধ্যে প্রায় ১,৯০০ মেল ও এক্সপ্রেস ট্রেনের গতি ঘণ্টায় ১৩০ কিলোমিটার করার যে লক্ষ্য নিয়েছে রেল, তারই অঙ্গ হিসেবে স্লিপার ক্লাস তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন রেল মন্ত্রকের মুখপাত্র ডি জে নারাইন । যাদব দাবি করেছেন, এই নতুন পদক্ষেপে রেল সফর আরও নিরাপদ ও আরামদায়ক হবে। তাঁর বক্তব্য, স্লিপার কোচ না তুললে ট্রেনের গতি বৃদ্ধি সম্ভব নয়। তবে এখনই কোনও নন-এসি ট্রেন থাকবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here