ছেলের গায়ে আগুন দিলো মা

0
69

নিজস্ব প্রতিবেদন (দেবস্মিতা ঘোষ)৩১.০৭.২০২০:ঘুমন্ত অবস্থায় ছেলের ঘরে আগুন লাগিয়ে দরজা আটকে, পরে নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মঘাতী মা। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়া শান্তিপুর থানা এলাকায়। সূত্রের খবর নদীয়া শান্তিপুর থানার চটকাতলা গ্রামের বাসিন্দা জয়ন্তী বসাক। তার স্বামী এবং এক সন্তান নিয়ে সংসার করতেন সেখানে। অভিযোগ আজ সকালে যখন ছেলে ঘরের মধ্যে ঘুমোচ্ছিলেন তখন জয়ন্তী বসাক হঠাৎ তার ঘরে ঢুকে চারিদিকে আগুন লাগিয়ে দেয় এবং বাইরে এসে দরজা আটকে দেয়। অভিযোগ এর পরেই পাশের একটি ঘরে গিয়ে ব্যবসার জন্য রাখার সব কাপড়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। ঘরের যে লোহার গেট রয়েছে সেখানেও ভিতর থেকে তালা লাগিয়ে দেয় বলে জানা যায়। এরপর নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। এদিকে জয়ন্তী বসাক এর ছেলে আগুনের তাপে ঘুম থেকে উঠে পড়ার পর চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করে। চিৎকার শুনে স্থানীয় প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন। ছুটে এসে স্থানীয়রা প্রথমে বাড়ির তালা ভেঙে পরে দরজা ভেঙে ওই ছেলেটিকে উদ্ধার করে এবং তার মাকে উদ্ধার করে রানাঘাট আনুলিয়া হাসপাতালে নিয়ে যায়। দীর্ঘক্ষন চিকিৎসা চলার পর জয়ন্ত বসাক এর মৃত্যু হয়।যদিও জয়ন্তি বসাকের ছেলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে শান্তিপুর থানার পুলিশ। কি কারনে এমন ঘটনা তার তদন্ত শুরু করেছে তারা। যদিও পরিবার এবং প্রতিবেশী সূত্রে দাবি বেশ কয়েক মাস ধরেই জয়ন্তি বিশ্বাস মানসিক রোগে ভুগছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here