বাপ্পা চ্যাটার্জীর গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ, বিধায়ক গ্রেপ্তার…

0
237

নিজস্ব প্রতিনিধি (মৌটুসি রায়) ১২/৯/২০ আসানসোলে বাপ্পা চ্যাটার্জীর গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ হয়।

আসানসোল পৌরনিগমের নামফলকে বাংলা ভাষাকে ব্রাত্য করে উর্দু
ভাষাকে নামফলকের অন্তর্ভুক্ত করাতে বিজেপির যুব মোর্চার জেলা সম্পাদক বাপ্পা চ্যাটার্জীকে শুক্রবার রাত্রে পুলিশ প্রশাসন গ্রেপ্তার করে। শণিবার সকালে বাপ্পা চ্যাটার্জীকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বিজেপির বাঁকুড়ার বিধায়ক সৌমিত্র খাঁ র নেতৃত্বে বিজেপির যুব মোর্চা পুলিশ কমিশনারের অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখান। সৌমিত্র খাঁর দাবি সোসাল মিডিয়ায় অনেকে অনেক কিছু পোষ্ট করেন কিন্তু তাদের গ্রেপ্তার করার কোন আইন নাই। তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা বিজেপির নামে অনেক কুৎসা সোসাল মিডিয়ায় পোস্ট করে, তাদের গ্রেপ্তার না করে বিজেপি কর্মীদের গ্রেপ্তার
করা হয়। পশ্চিম বাংলার পুলিশ প্রশাসন তৃণমূল কংগ্রেসের দল দাসে পরিণত হয়েছে। আসানসোল পৌরনিগমের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে কটাক্ষ করে সৌমিত্র খাঁ জানান তার উস্কানিতে বাপ্পাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে,বাপ্পার বিরুদ্ধে যে সব ধারায় মামলা করা হয়েছে জিতেন্দ্র তিওয়ারির নামেও সব থানাতে বিজেপি মামলা করবে। অবৈধভাবে কয়লা কারবারি করে জনজীবনকে বিপদের মুখে ঠেলে দিচ্ছেন। মাফিয়া ডন হয়ে জেলা প্রশাসনকে চালিত করছেন। অন্যদিকে মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি জানান বিজেপির কোন নেতার মন্তব্যকে গুরুত্ব দেওয়া ঠীক নয়। তারা যা কিছু বলতে পারে। কিছুদিন আগে বিজেপিরা ই সি এল অফিসে বিক্ষোভ করে বলেছিল সি আই এস এফের সহযোগিতায় কয়লা চুরি হচ্ছে, কেন্দ্রীয় বাহিনী তাদের প্রথমে নিয়ন্ত্রণ করার পর অন্যের দিকে আঙ্গুল উঠাবেন।
পুলিশ কমিশনার অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখাবার কারণে বিধায়ক সৌমিত্র খাঁকে আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশ গ্রেপ্তার করে, পরে ব্যাক্তিগত জামিনে ছেড়ে দেওয়া হয়। সৌমিত্র খাঁ জানান বাপ্পা চ্যাটার্জীর গ্রেপ্তার এবং তৃনমুল কংগ্রেসের অরাজকতার বিরুদ্ধে সোমবার রাজ্য জুড়ে অবরোধ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here