কোলের শিশুর সঙ্গে এ কী কাণ্ড ঘটালেন মা!

0
1191

নিজস্ব প্রতিবেদন (পল্লবী সান্যাল) ০১.১০.২০২০ :  মেয়ের পিঠে মেয়ে। তার ওপর গায়ের রং কালো। জন্ম থেকে তাই মায়ের স্নেহ মমতা থেকে বঞ্চিত হয়েছে শিশুটি।মাঝে মধ্যে একরত্তির কপালে আবার জুটেছে মারও। তখনও কেউ আন্দাজ করতে পারেননি কী ঘটতে চলেছে আসল ঘটনা।

বছর আটেক আগে সুন্দরবনের গোসাবা থানার মথুরাখণ্ড গ্রামের বাসিন্দা পেশায় মৎস্যজীবী জীতেন পাত্রের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন পূরবী। তাঁদের ৬ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। যার গায়ের রং ফর্সা। এরপর মাস তিনেক আগে ফের কন্যা সন্তানের জন্ম দেন পূরবী। তার গায়ের রং কালো হওয়ায় রাগে ঠিকমতো মেয়ের দেখভালও করতেন না ওই মহিলা। শেষ পর্যন্ত বাড়ি ফাঁকা থাকার সুবাদে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে একরত্তিকে খুনের অভিযোগ উঠেছে পূরবীর বিরুদ্ধে। গোটা ঘটনা সে অস্বীকার করলেও সাক্ষী থেকে গিয়েছে তার বড় মেয়ে। ঘটনাটি জানাজানি হতেই, একজন মা তার সন্তানকে কীভাবে খুন করতে পারে তা নিয়ে ব্যাপক শোরগোল পড়ে গিয়েছে এলাকায়। ইতিমধ্যেই জিতেনের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পূরবীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নাতনিকে খুনের ঘটনায় ঠাকুমা গীতা পাত্র জানান, এর আগে বহুবার পূরবীকে সাবধান করা হয়েছে শিশুটিকে মারধর করা নিয়ে। সেকথায় কনও কর্ণপাতই করেনি। বুধবার ছেলের  নদীতে গিয়েছিলাম কাঁকড়া ধরতে গেলে ঘটানো হয়েছে এই ঘটনাটি। বাড়ি ফিরের পরে নানাভাবে নাতনির মৃত্যুর কারণের ব্যাখ্যা দিতে শুরু করেন পূরবী। যদিও মায়ের কীর্তি ফাঁস করে দিয়েছে বড় মেয়েই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here