লক্ষ্য ২১, ঘাসফুলে রদবদল

0
90

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ একুশকে সামনে রেখে দলীয় বৈঠকে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবারই সেই বৈঠকে যে চমক থাকবে তা ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছিল। এদিনের বৈঠকে তৃণমূলের দলীয় স্তরে বড়সড় রদবদল হল। বৈঠক শেষে জানা যায়, দলীয় নেতৃত্বে বড়সড় রদবদল আনা হয়েছে। হাওড়ায় জেলা সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে অরূপ রায়কে। বদলে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে অপেক্ষাকৃত তরুণ মুখ লক্ষীরতন শুক্লাকে। অন্যদিকে, দক্ষিণ দিনাজপুরে জেলা সভাপতির পদ থেকে অর্পিতা ঘোষকে সরিয়ে দক্ষিণ দিনাজপুরের সভাপতি পদে দায়িত্বে গৌতম দাস। উনিশের লোকসভায় জঙ্গলমহল এবং উত্তরবঙ্গে গেরুয়া শিবিরের কাছে তৃণমূলের শোচনীয় হার থেকে বেশ শিক্ষা নিয়েছে তৃণমূল। অথচ জঙ্গলমহল তৃণমূলের রীতিমতো শক্ত ঘাঁটি ছিল। মাওবাদী সমস্যা দমন করে সেখানে শান্তি ফেরানোর প্রতিদান স্বরূপই সেখানকার জনসমর্থন আদায় করতে সক্ষম হয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী। তবে বছর কয়েক আগে থেকে গেরুয়া শিবিরের আচমকা এসব জায়গায় ঘাঁটি গেড়ে বসে উনিশের ভোটে জঙ্গলমহলের মূল তিন জেলা – ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া থেকে তৃণমূলের সাফ হয়ে যাওয়ার মতো ঘটনার সাক্ষী হতে হয়েছে। সেই জঙ্গলমহলে হৃত সমর্থন পুনরুদ্ধার করতে ফের সর্বশক্তি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন মমতা। তাই সেই জায়গার দায়িত্ব দিয়ে তিনি সরাসরি রাজ্য কমিটিতে নিয়ে এলেন ছত্রধর মাহাতোকে।

 

জঙ্গলমহলের দিকে নজর রেখে মমতা আরও তিন জেলা নিয়েও বড়সড় সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। পুরুলিয়ার জেলা সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাতোকে। বদলে নতুন সভাপতি হলেন গুরুপদ টুডু, যিনি আবার সম্পর্কে আরেক মন্ত্রী সন্ধ্যারানি টুডুর স্বামী। শান্তিরাম মাহাত দীর্ঘদিন ধরে জেলা সভাপতির দায়িত্ব সামলালেও তাঁর বিরুদ্ধে কিছুটা নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ উঠছিল বেশ অনেকদিন ধরে। মমতা তাঁকে একাধিকবার সাবধানও করেন। এবার তাঁকে দায়িত্ব থেকেই সরিয়ে দেওয়া হল। ঝাড়গ্রামে নেত্রীর নিজের অত্যন্ত পছন্দের পাত্রী বীরবাহা সোরেনকে সরিয়ে দেওয়া হল একুশের দিকে চোখ রেখে। তাঁর জায়গায় জেলা সভাপতি হলেন দুলাল মুর্মু। বাঁকুড়ায় তৃণমূলের নতুন জেলা সভাপতি হলেন শ্যামল সাঁতরা। পাশাপাশি দলের যে কোর কমিটি গঠন করা হয়েছে, তাতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে জায়গা হয়েছে শুভেন্দু অধিকারীরও। এছাড়া কোর কমিটিতে রয়েছেন ফিরহাদ হাকিম, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here