মহালয়ায় জেনে নিন দুর্গা পুজোয় মঙ্গল ঘট স্থাপনের নিয়ম

0
252

পল্লবী সান্যাল : বাঙালিদের বারো মাসে তেরো পার্বণের মধ্যে সবচেয়ে বড় উৎসব হল দুর্গা পুজো। আজ মহালয়ায় পিতৃপক্ষের অবসান ঘটল। তবে দেবীপক্ষের সূচনার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আগামী ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত। মহালয়া মানেই দেবীর মর্ত্যে আসার জন্য অপেক্ষা শুরু। হিন্দু ধর্মের রীতি অনুযায়ী, যে কোনও পুজোতেই ঘট স্থাপন করা হয়। ঠিক তেমনই দুর্গা পুজোয় দেবী প্রতিমার পাশাপাশি স্থাপন করা হয় মঙ্গল ঘট। মনে করা হয় ঘট হচ্ছে দেব-দেবীর নিরাকার রূপ। তাই যেকোনও পুজোই ঘট স্থাপন ছাড়া অসম্পূর্ণ।

এক নজরে দেখে নিন ঘট স্থাপনের নিয়ম  –

পুজোয় ঘট স্থাপন করতে হলে তা তামার তৈরি হলে সবচেয়ে ভালো। তামার ঘট না থাকলে মাটির তৈরি কিংবা পিতল বা স্টিলের ঘট ব্যবহার করা যেতে পারে। ঘট স্থাপনের সময়প্রয়োজন মাটির। গঙ্গা মাটি হলে সবচেয়ে ভালো। নয়তো নিকটবর্তী জলাশয়ের মাটিও ব্যবহার করা যেতে পারে।

ঘট স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী – ধান, জল, আম্রপল্লব (আম্র পল্লব, প্রশস্ত অভাবে অশ্বত্থ, বট, পাকুর ও যজ্ঞডুমুর পাঁচ বা সাতটি পাতা একত্রে), গোটা ফল (শীষ যুক্ত কচি ডাব না পেলে কাঁঠালী কলা, হরিতকী), ফুলের মালা, সিঁদুর (ঘৃত সিঁদুর বা সরিষার তৈল ও সিঁদুর গোলা), নতুন গামছা, মূর্তিতে পুজো করলে ঘট সম্পূর্ণ আচ্ছাদনের জন্য লাল শালু কাপড় লাগবে।এছাড়াও লাগবে – চারটি তিরকাঠি ও লাল ধাগা হলে ভাল, না হলেও সমস্যা নেই।


প্রথমে নরম মাটি ভিজিয়ে মাটিতে লেপতে হবে। ঘটে স্বস্তিক বা পুত্তলিকা সিঁদুর দিয়ে অঙ্কন করে ঘটে জল পূর্ণ করুন। ঘটের মুখে পল্লব দিন, পল্লবের প্রতিটি পাতায় সিঁদুরের ফোঁটা দিন। পল্লবের উপরে ফল বসান, ফলে পুত্তলিকা অথবা পাঁচটি সিঁদুরের ফোটা দিন। এ বার গামছা দিয়ে ফল ঢেকে দিন। মালা দিন ঘটে। এ বার ঘট সেই মাটির ওপর অল্প ধান দূর্বা দিয়ে তার ওপর দেবতার সামনে স্থাপন করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here