ইয়োরোর আজব মৎস্য বৃষ্টি

0
1009

শ্রেয়সী বল: বৃষ্টির রোমান্টিকতা আমরা খুঁজে পাই কবিতা,উপন্যাস,গান প্রভৃতিতে। বাস্তবজীবনেও এর উপলব্ধি করে থাকেন প্রকৃতিপ্রেমীরা। তবে আজ এক অদ্ভূত বৃষ্টির খোঁজ দেব আপনাদের। মধ্য আমেরিকার এক জায়গায় বছরে দু বার মৎস্য বৃষ্টি হয় । অবিশ্বাস্য হলেও এটাই সত্যি। সমুদ্র থেকে যোজন মাইল দুরে অবস্থিত মধ্য আমেরিকার হন্ডুরাসের ইয়োরো এলাকা। তা সত্ত্বেও বছরে দুবার এখানে আকাশ থেকে ঝরে পড়ে শয়ে শয়ে মাছ। ১৮০০ সাল থেকে প্রত্যেক বছর মে থেকে জুন মাসের মধ্যে এমনটা হয়ে থাকে।

এই অদ্ভুত ঘটনা লুবিয়া দে পেসেস নামে পরিচিত। প্রত্যেক বছর মে থেকে জুন মাসের মধ্যে এখানে তীব্রগতিতে ঝড় ও বৃষ্টি হয়। ঝড়ের তীব্র গতিবেগের জন্যই রাস্তায় শয়ে শয়ে মাছ এসে আছড়ে পড়ে। রাস্তাজুড়ে ভরে যায় নানারকম মাছে। তবে এর পিছনে যথাযথ বৈজ্ঞানিক কারণ এখনো প্রকাশ্যে আসেনি।

ইয়োরো এলাকার বাসিন্দারা আকাশের মেঘ দেখে আন্দাজ করতে পারেন কখন শুরু হবে তুমুল ঝড় এবং মৎস্য বৃষ্টি। ঝড় এতই তীব্র গতিবেগে হয় যে অদ্ভুত এক শব্দ তৈরি হয়। মনে হয় যেন আকাশ থেকে সোজা মাটিতে আছড়ে পড়ছে মাছ। এখানকার বাসিন্দারা অনেকে মনে করেন যে এই ঘটনার পিছনে কোনও ধর্মীয় কারণ রয়েছে । স্থানীয় মতে, ১৮৫৬ -১৮৬৪ সালে এখানে একজন ক্যাথলিক প্রিস্ট ছিলেন। মানুষ সেসময় অনাহারে ভুগছিল। তখন সেই প্রিস্ট ঈশ্বরের কাছে খাদ্যের জন্য প্রার্থনা করেন। আর তার পরেই এই অদ্ভুত কাণ্ড ঘটে। প্রচন্ড ঝড় উঠে এবং প্রায় আকাশ থেকে ঝরে পড়তে থাকে নানা রকমের মাছ। সেই থেকেই প্রত্যেক বছর এই ঘটনার সাক্ষী থাকে এখানকার মানুষ। অনেকে আবার বলেন ২০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত আটলান্টিক মহাসাগর থেকে এই মাছগুলি নাকি রহস্যজনকভাবে উড়ে এসে এখানে পড়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here