বৃষ্টির সম্ভাবনা । তারপরই জাঁকিয়ে শীত!

0
1988

শ্রেয়সী বল: শীতের আগমন কি শুরু? প্রশ্নটা জাগাচ্ছে উত্তর ভারতের আবহাওয়া। কেননা ইতিমধ্যেই প্রবল শীতের দাপট শুরু হয়ে গেছে উত্তর ভারত জুড়ে।এমনকি রাজ্যেও কিছু কিছু জায়গায় শীতের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে।তার উপর বৃষ্টির ভ্রূকুটি রাজ্যজুড়ে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, বঙ্গোপসাগরে ফের ঘনীভূত হচ্ছে নিম্নচাপ। মায়ানমারের কাছে একটি নিম্নচাপ নতুন করে তৈরি হচ্ছে বলে খবর। আবহবিদদের দাবি,এর প্রভাব নতুন করে পড়বে পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণের জেলাগুলিতে। বিশেষত বাংলার উপকূলভাগে এর প্রবল প্রভাব পড়বে শীতের আগেই। বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি ও ঠান্ডা দুইয়ের সমন্বয়ে রাজ্যবাসী পাবে এক ভিন্ন শীতের আমেজ।

প্রসঙ্গত, অসম, মেঘালয়, ত্রিপুরা, পুদুচেরি, তামিলনাড়ু, কেরল,কর্ণাটকে এই নিম্নচাপের প্রভাব পড়বে। এছাড়াও উত্তরপূর্বের ত্রিপুরা, নাগাল্যান্ড , মনিপুরেও এর প্রবল প্রভাব পড়বে বলে খবর আবহাওয়াদফতর সূত্রে। দক্ষিণবঙ্গের উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, নদিয়া,হাওড়া, হুগলি, কলকাতা, মুর্শিদাবাদ, নদিয়াতে আগামী ২৪ ঘন্টায়বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে হাওয়া অফিস। বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুরেও। সোমবার উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, এই ৫ জেলায় প্রবল পরিমাণে বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা। আবহাওয়াবিদরা জানাচ্ছেন, নিম্নচাপ বঙ্গপোসাগরে মায়ানমার উপকূল থেকে বাংলাদেশের দিকে অগ্রসর হতে শুরু করেছে। ফলে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে শীতের প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গেই পড়বে বৃষ্টি। আগামী বৃহস্পতিবার কিংবা শুক্রবারের আগে তাপমাত্রার পরিবর্তনের সম্ভাবনা কম। সেই সময় পরিস্থিতি অনুকূল থাকলে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯ ডিগ্রিতেও নামতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here