একুশে ভোটের ঘণ্টা বাজতেই রণনীতি নির্ধারণে শাসক-বিরোধী

0
82

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মঙ্গলবার একুশে জুলাইয়ের ভারচুয়াল সমাবেশ থেকেই একুশের ভোটের দামামা বাজিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একুশ জয়ের সুরও বেঁধে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। একুশের সমাবেশ থেকে বিজেপিকে হারানোর মন্ত্র বলে দিয়েছেন মমতা। আর সেই মন্ত্রে শান দিতে আগামীকাল তৃনমূল সুপ্রিমো দলীয় কর্মীদের নিয়ে ভার্চুয়াল সাংগঠনিক বৈঠক করবেন। সুত্রের খবর, এই বৈঠকের মাধ্যমে জেলার সাংগঠনিক পদে রদবদল হতে পারে।

অপর দিকে বাংলা দখল করতে এবার পালটা রণনীতি নির্ধারণে কোমর বেঁধে নেমে পড়ছে গেরুয়া শিবিরও।  গোটা বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব একুশের বাংলা দখলের রূপরেখা তৈরি করতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর জরুরি তলবে দিল্লি উড়ে গেলেন বুধবার। অমিত শাহ বাংলা থেকে ১৮ জন সাংসদের সঙ্গে বৈঠকের জন্য ডেকে পাঠিয়েছেন। বুধবার রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাহুল সিনহা এবং বিজেপি নেতা মুকুল রায়, সব্যসাচী দত্ত দিল্লি উড়ে গিয়েছেন। এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, “এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব রাজ্যে আসতে পারছেন না। কিন্তু বৈঠক জরুরি। রাজ্যের সার্বিক অবস্থা তুলে ধরতে প্রদেশ নেতৃত্বদের সঙ্গে বৈঠকে যোগ দিতেই দিল্লি যাওয়া।” বিজেপি নেতা রাহুল সিনহাও জানান, “২০২১এর নির্বাচনকে মাথায় রেখে প্রস্তুতি নিতেই এই বৈঠক।” বিজেপি সূত্রে খবর, জেলা ধরে ধরে আলোচনা করতে চাইছেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। তাই দিলীপ ঘোষ, সুব্রত চট্টোপাধ্যায়দের সঙ্গে জেলা সভাপতিদেরও ডাকা হচ্ছে। যখন যে জেলাকে নিয়ে আলোচনা হবে, তখন সেই জেলার সভাপতিকে বৈঠকে থাকতে হবে। থাকতে হবে সংশ্লিষ্ট জেলা থেকে নির্বাচিত বিজেপি সাংসদদেরও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here