পুলিশের ভূমিকা নিয়ে টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ…

0
97

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ফের রাজ্যকে খোঁচা দিয়ে টুইট করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। এবার টুইটে পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি। পুলিশ কার্যত দলদাসের মতো কাজ করছে বলেই দাবি রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধানের। বিরোধী দলের নেতানেত্রীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ তাঁর। এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ব্যাখ্যাও চেয়েছেন রাজ্যপাল। রাজ্যপাল  একটি ভিডিও বার্তা টুইট করে বলেন, “বিরোধী নেতানেত্রী, সাংসদ, বিধায়কদের উপর যেভাবে পুলিশ জুলুমবাজি চালাচ্ছে তা মানা যায় না। পুলিশ কার্যত শাসকদলের কর্মীদের মতো আচরণ করছে। গণতন্ত্রে এ জিনিস বরদাস্ত করা হবে না। রাজ্যের ভেঙে পড়া আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে ডেকেছি। তাঁর কাছ থেকেই সরাসরি আমি শুনতে চাই।” টুইটে তিনি লেখেন, “রাজ্যের উদ্বেগজনক পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করব ৷ পশ্চিমবঙ্গের মানুষের কল্যাণ আমার কাছে অগ্রাধিকার পাবে ৷ তাদের দুর্দশা দেখে আমি এই পদক্ষেপ করতে বাধ্য হয়েছি ৷ মানুষের স্বার্থে আমি নিয়োজিত ৷ সংবিধানকে রক্ষা করা আমার কর্তব্য ৷”

প্রথম টুইটবার্তায় তিনি লেখেন, “১৫ জুলাই এবং ২১ জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধানের সম্পর্কে যে মতামত প্রকাশ করেছেন, তা দুর্ভাগ্যজনক । যাঁরা সাংবিধানিক কর্তব্য পালন করছেন, তাঁরা বাচ্চাদের দস্তানা পরে নেই ।” একটি বার্তায় লেখেন, “সাংবিধানিক পদাধিকারীরা খঞ্জ নন । তাঁদের পা-ও মাটির তৈরি নয় । আশা করব, মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যবাসীর স্বার্থকে অগ্রাধিকার দেবেন । যৌথভাবে কাজ করার পরিবেশ তৈরি করে তাঁদের দুর্দশা দূর করতে সচেষ্ট হবেন।” পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, “রাজ্যপাল হিসেবে এ রাজ্যে আইনশৃঙ্খলার ক্ষেত্রে যে ব্যাপক অবনতি দেখা দিয়েছে তা নিয়ে আমি চিন্তিত ৷ কারণ পুলিশ রাজনৈতিক কর্মীর মতো কাজ করছে ৷ জনপ্রতিনিধি, বিরোধী দলগুলির সাংসদ ও বিধায়কদের জনসংযোগে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে ৷ এটা অগণতান্ত্রিক ৷ এই পরিস্থিতিতে আমি যখন দেখতে পাচ্ছি সাংসদদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করছে পুলিশ তখন আমি এই বিষয়ে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইব ৷ “ধনকড় বলেন, “আমি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনুরোধ করবে সময় বের করে এই বিষয়ে যেন আমার সঙ্গে কথা বলেন ৷ আমি নিশ্চিত, এই বিষয়টিকে তিনি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেবেন ৷ কারণ পুলিশ আইনানুগ আচরণ না করে শাসকদলের রাজনৈতিক কর্মীর মতো কাজ করবে তা আমরা কোনওমতেই মেনে নিতে পারি না৷ ” একইসঙ্গে তিনি পুলিশকেও তাদের আচরণ নিয়ে হুঁশিয়ার করেন ৷ বলেন, “আমি বারংবার পুলিশদের হুঁশিয়ার করছি ৷ আইন অনুযায়ী কাজ করা ও নিয়ম মেনে চলা তাদের একমাত্র কর্তব্য ৷ আমি নিশ্চিত যে তারা আমার কথা শুনবে ও রাজনৈতিক কর্মীর মতো কাজ করা বন্ধ করবে ৷ “

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here