ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় সহ সেন্ট মাদার টেরিজার স্মরণে জোড়া সভা কলকাতায়

0
437

নিজস্ব প্রতিবেদন (পল্লবী সান্যাল) ৫.০৯.২০২০ : ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় এবং সেন্ট মাদার টেরিজার স্মরণে শনিবার জোড়া সভার আয়োজন করেছিল অল ইন্ডিয়া মাইনরিটি ফোরাম। কলকাতার রিপন লেনে আয়োজিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন অল ইন্ডিয়া মাইনরিটি ফোরামের চেয়ারম্যান তথা বিধায়ক ইদ্রিশ আলি। প্রধান অতিথির আসনে ছিলেন প্রাক্তন রাজ্যসভার সদস্য তথা পূর্বের কলম পত্রিকার সম্পাদক আহমেদ হাসান ইমরান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন স্বামী পরমানন্দ মহারাজ, অরুন জ্যোতি ভিক্ষু, এহতাসামুল হক।

সভাপতির ভাষণে বিধায়ক ইদ্রিশ আলি বলেন, ‘প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের অসাধারন স্মৃতিশক্তি ছিল। তিনি একজন মেধাবী ছাত্র ও সুবক্তা ছিলেন। স্বাধীন ভারতের প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি হওয়াতে আমরা সকলেই গর্বিত। তাঁর নামে দিল্লিতে একটি কলেজের এবং একটি বড় রাস্তার নামকরণের দাবি, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে জানানো হয় অল ইন্ডিয়া মাইনরিটি ফোরামের তরফে। বিধায়ক ইদ্রিশ আলি বলেন ৫ সেপ্টেম্বর সেন্ট মাদার টেরিজার মৃত্যুদিন। ১৯৯৭ সালের আজকের দিনে তাঁর মৃত্যু হয়।তিনি ছিলেন গরীবের প্রকৃত বন্ধু। একজন প্রকৃত মানবদরদী যিনি কুষ্ঠ রোগীদের নির্দ্বিধায় কোলে তুলে নিতেন। তাঁর নামে একটি শিশু হাসপাতালের নামকরণের দাবি জানানো হয়। বিধায়ক ইদ্রিশ আলি আরও বলেন, শ্রদ্ধেয় প্রনব মুখোপাধ্যায়ের এবং সেন্ট মাদার টেরিজার সঙ্গে তাঁর ভাল সম্পর্ক ছিল।উক্ত দুজনের স্নেহ ভালোবাসা তিনি কোনওদিনও ভুলতে পারবেন না।‘

প্রধান অতিথির ভাষণে পূর্বের কলম পত্রিকার সম্পাদক তথা রাজ্যসভার সদস্য আহমেদ হাসান ইমরান প্রনব মুখোপাধ্যায় এবং মাদার টেরিজার অবদানের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ‘প্রনব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে আমার দীর্ঘদিনের আলাপ ছিল। বহু সভা করেছি ওনার সঙ্গে।‘

ডঃ অরুন জ্যোতি ভিক্ষু বলেন, ‘অল ইন্ডিয়া মাইনোরিটি ফোরামের পক্ষ থেকে আমরা বরাবরই মনিষীদের স্মরণ করি। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় এবং সেন্ট মাদার টেরিজার কার্যকলাপ মানুষ চিরকাল মনে রাখবে।‘

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here